শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৭:৪০ পূর্বাহ্ন

সাংবাদিক পলাশ হত্যার আজ দুই বছর

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ১৩

লক্ষ্মীপুরের তরুণ সাংবাদিক শাহ মনির পলাশের মৃত্যুর আজ দুই বছর পূর্ণ হয়েছে। চাচাতো ভাইদের রড ও কাঠের আঘাতে মাথায় জখম হয়ে ২০১৮ সালে ১৫ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

মরহুম পলাশ সদর উপজেলার পার্বতীনগর ইউনিয়নের মাছিমনগর গ্রামের মনির হোসেনের ছেলে। তিনি ঢাকা থেকে প্রকাশিত দৈনিক রূপবাণী পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি ও লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজের বিএ (ডিগ্রি) কোর্সের ফলপ্রার্থী ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ২৫ বছর।

মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আজ শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) পলাশের আত্মার মাগফেরাত কামনায় স্থানীয় মসজিদে দোয়া ও মিলাদের আয়োজন করার কথা রয়েছে।

জানা গেছে, পলাশ হত্যা মামলাটি আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। মামলার প্রধান আসামি আবু ইউছুফ কারাগারে ও অপর আসামি আবু ছায়েদ জামিনে আছে। তারা মরহুম পলাশের চাচা আক্তারুজ্জামানের ছেলে।

জানতে চাইলে মরহুম পলাশের বাবা মনির হোসেন বলেন, আমার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছিল। আমি হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি সকালে পলাশদের বাগানের গাছ কেটে নেওয়ার চেষ্টা করে তার দুই চাচাতো ভাই আবু ইউছুফ ও আবু ছায়েদ। বাধা দিলে পলাশের বাবা মনির হোসেনকে তারা ইট নিক্ষেপ করে। এতে পলাশের বৃদ্ধ বাবা আহত হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। এসময় বাবাকে উদ্ধার করতে গেলে তার ওই দুই চাচাতো ভাই পলাশকে রড ও কাঠ দিয়ে মাথায়-বুকে আঘাত করে। মাথায় আঘাত পেয়ে তাৎক্ষণিক সে অচেতন হয়ে পড়ে। আর এতে তার মাথা না ফেটে ভেতরে রক্ত জমাট বেধে যায়। পরে তাকে প্রথমে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন ১৫ ফেব্রুয়ারি ভোরে তিনি মারা যান।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..