বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৮:৪৪ অপরাহ্ন

মেননের সদস্য পদ শূন্য ঘোষণা পুনরায় নির্বাচন দেওয়ার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৮ অক্টোবর, ২০১৯
  • ২৬

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের সংসদ সদস্য পদ বাতিল করে ঢাকা-৮ আসনে পুনর্নির্বাচন দাবি করেছেন একাদশ সংসদ নির্বাচনে ঐ আসনে এনডিএফ জোট মনোনীত প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী প্রার্থী ন্যাশনাল কংগ্রেস বাংলাদেশ-এনসিবির চেয়ারম্যান ছাবের আহাম্মদ (কাজী ছাব্বীর)। গতকাল রবিবার রাজধানীর মুগদায় এনসিবির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি জানান।

কাজী ছাব্বীর বলেন, গত ১৯ অক্টোবর বরিশালে এক দলীয় সভায় মেনন বলেছেন, ‘গত নির্বাচনে আমিও নির্বাচিত হয়েছি। তারপরেও আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি ঐ নির্বাচনে দেশের জনগণ ভোট দিতে পারেনি।’ যা গণমাধ্যমে ফলাওভাবে প্রচারিত-প্রকাশিত হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তার বক্তব্যের ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। দেশ-বিদেশে সবাই এটা দেখেছে। তার এ বক্তব্য ও সাক্ষীদানের মাধ্যমে সুস্পষ্টভাবে প্রমাণিত যে, তিনি জনগণের ভোটে নির্বাচিত এমপি নন। কাজেই এটা প্রমাণের জন্য আর কোনো তদন্তের প্রয়োজন নেই। জনগণের সরাসরি ভোটে নির্বাচিত না হয়ে সংসদ সদস্য হওয়ার বিধান নেই। ঐ আসনে ভোটারবিহীন নির্বাচনের বিষয়টি মেনন স্বেচ্ছায় সুস্পষ্টভাবে স্বীকার করেছেন। তার স্বপ্রণোদিত বক্তব্য ও সাক্ষীর আলোকে তিনি জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়—এটা অকাট্যভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তার সংসদ সদস্য পদ শূন্য ঘোষণা করা আইনগতভাবে বাধ্যতামূলক হয়ে পড়েছে।

এনসিবি চেয়ারম্যান আরো বলেন, বিগত সংসদ নির্বাচনে আমার ‘আম’ প্রতীকের জয়জয়কার ছিল। নির্বাচনী প্রচারণায়ও আমি এগিয়ে ছিলাম। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আমার বিজয় নিশ্চিত ছিল। তাই কালক্ষেপণ না করে মেননের সংসদ সদস্য পদ শূন্য ঘোষণা করে ও ঢাকা-৮ আসনে পুনরায় নির্বাচন দিয়ে সংবিধানের আলোকে জনগণের প্রত্যাশিত প্রতিনিধি নির্বাচনের স্বার্থে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য জাতীয় সংসদের স্পিকার ও প্রধান নির্বাচন কমিশনারের প্রতি দাবি জানান কাজী ছাব্বীর। সংবাদ সম্মেলনে এনসিবির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী মো. ইউসুফ আলী চৌধুরী, মাহফুজা আক্তার (বীণা), ড. সুভাস পাল, ইঞ্জি. আনোয়ার পারভেজ, অতিরিক্ত মহাসচিব অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান, যুগ্মমহাসচিব জি এস এম সেলিম রেজা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..