রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪:০০ অপরাহ্ন

জাতীয় লিগে সম্মানী বাড়েনি ক্রিকেটারদের

স্পোর্টস ডেস্ক:
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৯ অক্টোবর, ২০১৯
  • ১২

জাতীয় ক্রিকেট লিগের ২১তম আসরের জন্য ফিটনেসে জোর দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। জাতীয় লিগে মূলত বিসিবির অর্থায়নে হয়। ঘরোয়া লিগের এই কাঠামো ভালো করতে তাই ফিটনেসে জোর দেয় বিসিবির কর্তারা। বিফ টেস্টে স্কোর বেধে দেওয়া হয় ১১। তরুণ ক্রিকেটারদের জন্য এই স্কোরে কোন ছাড় দেওয়া হয়নি। তবে বয়সভিত্তিক দল এবং জাতীয় লিগে খেলা তুষার ইমরান, রাজ্জাকদের মতো সিনিয়ররা পেয়েছেন কিছুটা ছাড়।

জাতীয় লিগে যেহেতু নিয়মের কড়াকড়ি করা হয়েছে। খেলার জন্য তাই ক্রিকেটাররা সম্মানীও বেশি পাবেন বলে মনে করা হয়েছিল। তবে ক্রিকেটারদের সম্মানী বা ভাতা বাড়ানো হয়নি। তবে এবারের এনসিএল আকর্ষনীয় করতে বেশ কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে। আগামী ১০ অক্টোবর থেকে জাতীয় লিগ শুরু হবে। অংশ নেবে আটটি দল। দুইটি স্তরে অনুষ্ঠিত হবে টুর্নামেন্টটি। দুই স্তরের চ্যাম্পিয়ন দলের অর্থ পুরস্কার, ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি এবং ভাতায় আছে ভিন্নতা।

বিসিবির ঘোষণা অনুযায়ী, প্রতি দলকে প্রস্তুতির জন্য প্রথম ও দ্বিতীয় টায়ারে দেওয়া হবে ছয় লাখ করে টাকা। ক্রিকেটাররা প্রতিদিন দেড় হাজার টাকা করে ভাতা পাবেন। ম্যাচ ফি দেওয়া হবে ৩৫ হাজার টাকা করে। তবে দ্বিতীয় স্তরে ম্যাচ ফি কমে হবে ২৫ হাজার টাকা। যাতায়াত খরচ দেওয়া হবে আড়াই হাজার টাকার মতো।

প্রথম টায়ারে চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ২০ লাখ টাকার অর্থ পুরস্কার। দ্বিতীয় ধাপে সেটা হবে পাঁচ লাখ টাকা। রানার্স আপ দলকে প্রথম ধাপে দেওয়া হবে ১০ লাখ টাকা। তবে দ্বিতীয় ধাপে রানার্স আপ হওয়া দল কোন অর্থ পুরস্কার পাবে না। প্রতি ম্যাচে প্রথম ধাপে ম্যাচ সেরা ক্রিকেটার পাবেন ২৫ হাজার টাকা। দ্বিতীয় ধাপে সেটা হবে ২০ হাজার টাকা। টুর্নামেন্ট সেরা ক্রিকেটার প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে যথাক্রমে এক লাখ ও ৫০ হাজার টাকা পাবেন। সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ও উইকেট শিকারি প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে যথাক্রমে ৭৫ হাজার ও ৫০ হাজার করে টাকা পাবেন। প্রতি ম্যাচে জয়ী দল প্রথম ধাপে বোনাস পাবে ৮০ হাজার টাকা। দ্বিতীয় ধাপে পাবে ৭৫ হাজার টাকা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..